বিয়ানীবাজারে স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষন, দুই অভিযুক্ত কারাগারে

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি :: বিয়ানীবাজারে লাউতায় পঞ্চম শ্রেণী এক শিক্ষার্থী গণধর্ষনের শিকার হয়েছেন। এলাকাবাসী দুই ধর্ষককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন। আটককৃতরা হলেন উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের বাহাদুর পুর দক্ষিণ ঠিকরপাড়া গ্রামের মৃত ছাইদ আলীর ছেলে ফয়ছল আহমদ পেটলা ও উত্তর গাঙপার এলাকার মৃত আব্দুর খালিকের ছেলে মিশুক আহমদ।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের বাহাদুরপুর ঠিকরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বুধবার (৭ এপ্রিল) তাদের বিরুদ্ধে বিয়ানীবাজার থানায় মামলা দায়ের (মামলা নং ০৩) করেছেন ভিকটিমের পিতা।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে ঘরের বারান্দায় নলকূপ থেকে পানি নিতে বের হলে ১২ বছর বয়সী ঐ শিশুকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে পাশের একটি নির্জন জায়গায় অভিযুক্ত দুই ধর্ষক পালাক্রমে ধর্ষণ করে অজ্ঞান অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়। এসময় ঘরের লোকজন খোঁজাখোজি করে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন। এঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয়রা ধর্ষকদের আটক করে রাখেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে থানা নিয়ে আসে।

বিয়ানীবাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেহেদী হাসান জানান, অভিযুক্ত দুই ধর্ষককে আটক করে বুধবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

একাত্তরেরকথা/সাজু/ইআ