প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

দৈনিক একাত্তরের কথায় প্রকাশিত ‘নয়া সড়কে কালা বাড়ি রাস্তা রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন’ শিরোনামে সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন নয়াসড়ক এলাকার আল হেলাল-১৩ নম্বর বাসার বাসিন্দা মৃত শফিক উদ্দিনের ছেলে আদনান মাহমুদ।

শনিবার এক প্রতিবাদলিপিতে তিনি জানান, গত ৯ সেপ্টেম্বর শনিবার দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকায় ‘নয়া সড়কে কালা বাড়ি রাস্তা রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন’ শিরোনামে একটি বিজ্ঞপ্তি বিষয়ক সংবাদ আমার দৃষ্টি আকর্ষণ হয়েছে। এতে আমাকে, আমার পরিবারসহ সরকারি কর্মকর্তা ও তার পরিবারকে জড়িয়েও মিথ্যা, মানহানিকর ও বিভ্রান্তিকর তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে।

আমরা এলাকায় শান্তিপ্রিয় মানুষ হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশীদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রেখে বসবাস করছি। স¤প্রতি আমাদের রেকর্ডীয় সত্ত¡ মালিকানাধীন ভূমিতে দোকানকোটা নির্মাণের উদ্যোগ নিয়ে স্থানীয় একটি চক্র আমাদের কাছে চাঁদা দাবিসহ দোকান নির্মাণে প্রতিবন্ধকতা এবং হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে।

আমরা এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করার পর পুলিশ সত্যতা পেয়ে হুমকি দাতাদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদনও দিয়েছে। এবং মামলাটি আদালতে বিচারাধীন আছে।

এরপরও কুচিক্ররা আমাদের দোকান কোটা নির্মাণে শুধু বাধাই দিয়ে আসছে না, গত কয়েকদিন থেকে আমাদের দোকান কোটার পাশের সিটি করপোরেশনের ¯øাব দখল করে জোরপূর্বক দেয়াল নির্মাণের চেষ্টা করেছে। ওই ¯øাবের পাশে আমাদের আরো এক ফুট জায়গাও খালি আছে। খবর পেয়ে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ ওই চক্রকে দেয়াল নির্মাণে বাধা দিয়েছে এবং তাদের দেয়াল গুড়িয়ে দিয়েছে। এসময় চক্রটি আমাকে প্রাণে হত্যার চেষ্টাও করে। তাদের হাতে আক্রান্ত হয়ে আমি হাসপাতালে চিকিৎসা নেই এবং তাদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত এজাহার জমা দেই।

এখন ওই চক্র উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে রাস্তা দখলের মিথ্যা অভিযোগ এনে মানববন্ধন করে আমাদের বিরুদ্ধে আপত্তিকর ও মানহানিকর ভাষায় বক্তব্য বিবৃতি ও হুমকি ধমকি অব্যাহত রেখেছে। তারা শুধু মানববন্ধনে আমার ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধেই বিষোদগার করেনি, একজন সম্মানিত সরকারি কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধেও বিষোদগার করেছে, যারা এ ঘটনায় কোনভাবেই জড়িত নন।

আমাদেরকে হুমকি ধমকি, মারধর করেও যখন আমাদের বৈধ জায়গায় আইন মেনে দোকান কোটা নির্মাণ থেকে বিরত রাখতে পারছে না তখন তারা রাস্তা দখলের নামে মিথ্যা তথ্য দিয়ে মানববন্ধন করে সামাজিকভাবে আমাদের হেয় করার অপচেষ্টা করে বিভিন্ন পত্রিকায় মিথ্যা ও মানহানিকর সংবাদ পরিবেশন করাচ্ছে।

সরেজমিন কোন সাংবাদিক ভাই ঘটনাস্থলে গেলেই কুচিক্র মহলের মুখোশ উন্মোচন করতে পারবেন। আমরা আপনার পত্রিকায় প্রকাশিত মিথ্যা ও মানহানিকর সংবাদের নিন্দা জানাচ্ছি।-প্রেসরিলিজ