ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে কিশোর অপরাধ বিষয়ক সভা

একাত্তর ডেস্ক:: স্বাস্থ্যবিধি মেনে সিলেট ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)-৯ কতৃক ‘কিশোর অপরাধ নির্মুলে জনসচেতনতামূলক’ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। রবিবার ক্যাম্পাসে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

র‍্যাব-৯, সিলেট হতে মেজর মাহফুজের নেতৃত্বে ০৫ সদস্যের প্রতিনিধি দল কিশোর অপরাধ সংঘটনের বিভিন্ন দিক এবং তা পারিবারিক ও সামাজিকভাবে প্রতিকারের উপায় বর্ণনা করেন।

প্রেষণামূলক এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে র‍্যাব-৯ এর সহকারী পরিচালক এএসপি ইকরাম সম্প্রতি ‘কিশোর গ্যাং’ নামে দেশের বিভিন্ন স্থানে উঠতি বয়সের কিশোরদের অপরাধ সংঘটনের বিভিন্ন ঘটনা তুলে ধরেন।

তিনি কিশোর অপরাধের ধরন, কারণ, কুফল ও সামাজিকভাবে তা প্রতিকারের বিভিন্ন উপায় সাবলীলভাবে উপস্থাপন করেন। র‍্যাব-৯ হতে আগত প্রতিনিধি দলের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ, শিক্ষকমণ্ডলী, নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা ও অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অধ্যক্ষ তাঁর সমাপনী বক্তব্যে বলেন, দেশব্যাপী জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও বিভিন্ন অপরাধ প্রশমনে র‍্যাবের ভূমিকা সবর্জন স্বীকৃত।

তারই অংশ হিসেবে সিলেট ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে এ ধরনের জনসচেতনামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তিনি র‍্যাব-৯কে বিশেষভাবে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন ও ধন্যবাদ জানান। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, সকলের সম্মিলিত প্রয়াসের মাধ্যমে কিশোর অপরাধ নির্মূল করা সম্ভব হবে এবং শিক্ষার্থীরা দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ থেকে ভবিষ্যতের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অভিভাবকবৃন্দ নিয়মিত পাঠ্যক্রমের বাইরে পরিচালিত কিশোর অপরাধ দমনে এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান এবং প্রতিষ্ঠানের চলমান সার্বিক কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

একাত্তরের কথা/এমডিজে